Thu. Oct 29th, 2020

করোনা টেস্ট হচ্ছে সংসদে যোগদানকারী সব এমপির, করোনা আক্রান্ত ১৫ এমপি ও সংসদ সচিবালয়ের ৯৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী

স্বাধীনকণ্ঠ ডেস্ক-
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোনো সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে যোগদান করতে পারবেন না। কোনো সাংসদের করোনা উপসর্গ থাকলেও তাদের সংসদে প্রবেশে নিরোৎসাহিত করা হয়েছে।শনিবার থেকে শুরু হয়েছে অধিবেশনে যোগদানকারী সব সংসদ সদস্যের (এমপি) করোনা টেস্টও।
টেস্টের রেজাল্ট যাদের পজিটিভ আসবে তারা অধিবেশনে বসবেন না। আর যাদের এ রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে তারা কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন এবং সরাসরি সংসদ অধিবেশনে যোগ দেবেন।
একইসঙ্গে সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনা টেস্ট করা হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেই গত ১০ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু হয়েছে। ১১ জুন আগামী অর্থবছরের বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।
অন্যান্য বছর বাজেটের ওপর আলোচনা মাসব্যাপী হলেও এবার করোনার কারণে প্রথমে আলোচনার জন্য নির্দিষ্ট করা হয় সাত দিন। কিন্তু প্রথম দিনই সংসদের একজন জ্যেষ্ঠ সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার ঘটনায় উদ্বেগ তৈরি হয়।
এ পরিস্থিতিতে বাজেট আলোচনার সময় মাত্র দু’দিন নির্ধারণ করা হয়। এরমধ্যে সম্পূরক বাজেট পাসের দিন থেকে এ পর্যন্ত আরও ১৫ সংসদ সদস্য এবং সংসদের ৯৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর করোনা শনাক্তের ঘটনায় আতঙ্ক দেখা দেয়।
জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন জানান, শনিবার থেকে টেস্ট করা হচ্ছে। যাদের পজিটিভ আসবে তারা অধিবেশনে যোগ দেবেন না। আর যাদের নেগেটিভ আসবে তারা কোয়ারেন্টাইন মেইনটেইন করবেন।
অধিবেশন আরও সীমিত হবে কিনা এ প্রশ্নে চিফ হুইপ বলেন, পরিস্থিতির ওপর সব নির্ভর করছে। তবে আমরা অধিবেশনের যোগদানকারী সবাইকেই টেস্টের আওতায় আনছি।
তিনি বলেন, সংসদের চলতি বাজেট অধিবেশনের আগামী চারটি বৈঠকে যেসব এমপিরা অংশ নেবেন তাদের করোনা টেস্ট শুরু করা হয়েছে। এছাড়া সংসদ সচিবালয়ের উদ্যোগে প্রতিদিনই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনা টেস্ট করা হচ্ছে।
শনিবার থেকে এই কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এদিন ২০ জন এমপির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়া সংসদ সচিবালয় ও ভবনের ৩৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীরও নমুনা নেওয়া হয়েছে। আজ রোববারও এমপিদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।
জাতীয় সংসদের ১৫ জন সংসদ সদস্য ও ৯৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে।
জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের ডেন্টাল সার্জন ডা. তামিম গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা যাদের টেস্ট করেছি এখন পর্যন্ত (১৮ জুন) ৯৪ জন শনাক্ত হয়েছেন। পরবর্তী বৈঠকগুলোতে অংশ নেবেন তাদের টেস্ট করা হচ্ছে।
এদিকে যারা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে তিন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীসহ ১৫ সংসদ সদস্য রয়েছেন। এদের মধ্যে একজন সাবেক চিফ হুইপ রয়েছেন।
আক্রান্তরা হলেন- বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। এদের মধ্যে শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ গত ১৩ জুন মারা যান।
সাবেক মন্ত্রী এবং সিরাজগঞ্জ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম করোনা আক্রান্তের পর ব্রেন স্ট্রোক করে মারা যান।
এছাড়াও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাবেক চিফ হুইপ ও মৌলভীবাজার-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ, সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত গণফোরামের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান, সাবেক হুইপ ও নওগাঁ থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের সদস্য শহীদুজ্জামান সরকারের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সূত্র- শ্যামল সিলেট ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *