Thu. Apr 22nd, 2021

শাল্লায় খাস জমির ফসল কাটা নিয়ে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ২৫

শাল্লা প্রতিনিধি-

সুনামগঞ্জের শাল্লায় খাস জমির ফসল কাটা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ৫জন পুলিশ সদস্যসহ ২৫জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে কাদানে গ্যাসসহ বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েন।
সোমবার ০৫ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার ১নং আটগাঁও ইউনিয়নের আটগাঁও গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এরইমধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। তবে পুন: সংঘর্ষের আশঙ্কায় ওইগ্রামে এখনো পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আটগাঁও গ্রামের আলী আমজদ ও ইসমাইল মিয়ার মধ্যে খাস জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলেছিল। এরই সূত্র ধরে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় খাস জমিতে ফলায়িত বোরোধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র¿ নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ২০জন ও ৫জন পুলিশ সদস্যসহ মোট ২৫জন আহত হয়েছে। তবে সংঘর্ষে আহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তবে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত আটগাঁও গ্রামের হাজী মিয়াফর তালুকদারের ছেলে জুনেদ আহমদ তাং (৩৮), আঃ সত্তারের ছেলে জাইদুল ইসলাম (২৫), আলী আমজদের ছেলে আল-হোসাইন (১৬), মৃত রমজান আলীর ছেলে তারাব আলী (৫০) ও মৃত জালাল আহমদের ছেলে হাবরুল ইসলাম (২৪) এই পাঁচজনকে এরইমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে শাল্লা থানার এসআই শাহ আলী’র সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। এতে ৫জন পুলিশ সদস্য আহত হয়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিতে ও আত্মরক্ষা করতে ৩ রাউন্ড টিয়ার সেল ও ৩০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়া হয়। বর্তমানে ওইগ্রামের পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত আছে। তবে পুন: সংঘর্ষের আশংকায় আটগাঁও গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এঘটনায় কোনো মামলা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *